FASHON
  • গেমিং ডিসঅর্ডার

    আজকাল বাচ্চাদের বেশির ভাগ সময় কাটে মোবাইল কিংবা কম্পিউটারের সামনে। নানা রকম গেম কিংবা ইউটিউবে ভিডিও দেখে দেখে বড় হচ্ছে তারা। চিকিৎসকেরা ক্রমাগত বলে আসছেন, বাচ্চার চোখ, স্বাস্থ্য, মন- সবকিছুর জন্যই বিষয়টি ভীষণ ক্ষতিকর। কাজ হচ্ছে না তাতেও। তবে নড়েচড়ে বসেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। এক রিপোর্টে তারা বলেছে, বাচ্চাদের গেমের এই আসক্তি থেকে জন্ম নিচ্ছে গেমিং ডিসঅর্ডার নামক নতুন একটি রোগ। এ থেকে আগামীতে নানা রকম মানসিক সমস্যা দেখা দেয়ার আশঙ্কা প্রবল। এ বছর মানসিক সমস্যার তালিকায় গেমিং ডিসঅর্ডারকে যুক্ত করতে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। দিন বা রাতের বেশির ভাগ সময় যারা গেম খেলে কাটায়, তারা যদি একই ধরনের আচরণের পুনরাবৃত্তি করলে তাকে ‘গেমিং ডিসঅর্ডার’ হিসেবে আখ্যায়িত করেছে ডব্লিউএইচও। এই ডিসঅর্ডারে আক্রান্ত হতে পারে বাচ্চা বা যেকোনো প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ। উল্টোপাল্টা আচরণের পাশাপাশি মাঝে মাঝে রীতিমতো সহিংস হয়ে ওঠে তারা। এভাবে একসময় পরিণত হয় মানসিক রোগীতে। গেমে প্রবলভাবে আসক্ত শিশুদের অবিলম্বে মানসিক চিকিৎসকের শরণাপন্ন হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি বাচ্চাদের গেম খেলা থেকে যতটা সম্ভব বিরত রাখার দায়িত্ব তার পরিবারকেই নিতে হবে বলে জানানো হয়েছে।


    Subscribe & Follow

    JOIN THE FAMILY!

    Subscribe and get the latest about us
    TRAVELS
    LIFESTYLE
    RECENT POST
    বোটক্সের বদলে
    19 January, 2018 7:14 pm
    আলোকচিত্র
    19 January, 2018 7:11 pm
    BANNER SPOT
    200*200
    SOLO PINE @ INSTRAGRAM
    FIND US ON FACEBOOK